ভার্সিটি

পানিতে ডুবে বিশ্ববিদ্যালয়ের জোড়া শিক্ষার্থীর মৃত্য

অত্র দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে

নিজস্ব প্রতিনিধি : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের-বশেমুরবিপ্রবি গোপালগঞ্জের পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের তাসপিয়া জাহান রিতু (২০) ও অনন্যা হিয়া (২০) নামক দুই পড়ুয়া পানিতে ডুবে মারা গেছে।

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১২ টায় মুজিব বিশ্ববিদ্যালয়ের লেকে ডুবে অত্র দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়।

অন্যান্য শিক্ষার্থী সূত্রে জানা গেছে, সাঁতার না জানা শিক্ষার্থী হিয়াকে লেকে ডুবতে দেখে রিতু নামক শিক্ষার্থীটি এগিয়ে আসেন। একপর্যায়ে দুইজনই ডুবে যান এবং প্রায় ২০-২৫ মিনিট ডুবে থাকার পর অন্য শিক্ষার্থীরা সেই লেকে নেমে তাদের খুঁজে পান। তাৎক্ষণিক তাদের দুইজনকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। এরপর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে জানান।

গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক কাজী ইসমাইল হোসেন ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মো. কামরুজ্জামান তাদের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন।

মুজিব বিশ্ববিদ্যালয়ের ডক্টর মো. কামরুজ্জামান বলেন, বেলা সাড়ে বারোটার দিকে বৃষ্টি হচ্ছিল। ওই সময় পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের দুই শিক্ষার্থী লেক পাড় দিয়ে বৃষ্টিতে ভিজছিলো। এরপর তারা বিশ্ববিদ্যালয় লেকে পড়ে নিখোঁজ হয়। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্য শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন স্থানে খুঁজে তাদের না পেয়ে লেকে দেখতে পায়। এরপ্র তাদেরকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ইসমাইল হোসেন তাদের মৃত ঘোষণা করে।

বশেমুরবিপ্র বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, রিতু নামক শিক্ষার্থীর বাড়ি বাগেরহাট জেলার ফকিরহাট ও রিয়ার বাড়ি খুলনা সদরে। তারা দু’জনই বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে গোবরা এলাকায় মেসে থাকতেন। অত্র দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

শিক্ষা নিউজ আর আর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button