প্রাথমিক

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা পাঁচ হাজার করে টাকা পাবেন

‘সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক কল্যাণ ট্রাস্ট বিল ২০২৩’

শিক্ষা নিউজ আপডেট : দেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা আবেদন করলে শিক্ষক কল্যাণ ট্রাস্ট থেকে ঘরে বসে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে পাঁচ হাজার টাকা অর্থিক সহায়তা পাবেন। এদেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষকদের জন্য কল্যাণ ট্রাস্ট আইন পাস হওয়ায় চার লাখ ৬২ হাজার শিক্ষক এই সুবিধার আওতায় এসেছেন।

আরো পড়ুন: প্রাথমিক বৃত্তি পরীক্ষা নিয়ে অধিদপ্তরের নতুন সিদ্ধান্ত

গত ৭ই সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সংবাদ সম্মেলনে প্রাগশি মন্ত্রণালয়ের সচিব ফরিদ আহাম্মদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সচিব বলেন, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক কল্যাণ ট্রাস্ট আইন পাসের মাধ্যমে শিক্ষকদের মোবাইলের মাধ্যমে তাদের নিজ অ্যাকাউন্টে এই টাকা পৌঁছে যাবে। এখানে উল্লেখ্য যে, ৫ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে ‘সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক কল্যাণ ট্রাস্ট বিল ২০২৩’ পাস হয়। এবং এর আগে আইনটি পাস হয়।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব ফরিদ আহাম্মদ এবিষয়ে আরো বলেন, “গত পরশু জাতীয় সংসদে শিক্ষক কল্যাণ ট্রাস্ট আইন পাস হয়েছে। যাতে বাংলাদেশের ৪ লাখ ৬২ হাজার শিক্ষকের জন্য গত ৭ থেকে ৮ বছর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৩৬ কোটি টাকা দিয়েছেন। কিন্তু এ সংক্রান্ত আইন না থাকার কারণে বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা শিক্ষকদের আর্থিক দৈন্য ও দৈব-দুর্বিপাকে আমরা তাদের সহায়তা করতে পারি না।

ফরিদ আহাম্মদ ‘সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক কল্যাণ ট্রাস্ট বিল ২০২৩’ আইনটি পাস হওয়াকে যুগান্তকারী উল্লেখ করে বলেন, “আমরা পরিকল্পনা করেছি, সেপ্টেম্বরের মধ্যেই মোবাইলে সফটওয়্যারের মাধ্যমে গ্রামে বসে শিক্ষকরা আবেদন করতে পারবেন। মোবাইল এসএমএসের মাধ্যমে আর্থিক সহায়তার ন্যূনতম পাঁচ হাজার টাকা তাদের অ্যাকাউন্টে পৌঁছে যাবে। আমি মনে করি, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা এতে দারুণভাবে উপকৃত হবেন।”

উক্ত পাস হওয়া বিলে বলা হয়েছে, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চাকরিরত অবস্থায় কোনো শিক্ষকের মৃত্যু হলে তার নাবালক সন্তানের প্রাপ্তবয়স্ক হওয়া পর্যন্ত শিক্ষার ব্যয় বহন করা হবে। এ ছাড়া আরো বলা হয়েছে, প্রতিবন্ধী শিশু বা বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশুর প্রয়োজনে খরচ দেওয়া হবে।

বিলে বলা হয়েছে, চিকিৎসা খরচসহ কিছু আর্থিক সুবিধা পাবেন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা। এর জন্য অবশ্য প্রাথমিক শিক্ষকদের একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ ট্রাস্ট ফান্ডে জমা দিতে হবে, যা বিধি মোতাবেক সেই টাকা জমা দেওয়ার পরিমানটি নির্ধারিত হবে।

শিক্ষা নিউজ আর আর।

Related Articles

One Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button