চাকরি

বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগ নিবন্ধন পরীক্ষা বাতিল : আসছে নতুন পদ্ধতি : এনটিআরসি নয় এনটিএসসি

বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগ নিবন্ধন পরীক্ষা বাতিল। এবার এনটিএসসি আসছে : এনটিআরসি বাতিল।

বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগ নিবন্ধন পরীক্ষা বাতিল : আসছে নতুন পদ্ধতি : এনটিআরসি নয় এনটিএসসি

শিক্ষা নিউজ ডেস্ক : বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগ নিবন্ধন পরীক্ষা বাতিল। এবার এনটিএসসি আসছে : এনটিআরসি বাতিল। দেশের বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমুহে শিক্ষক নিয়োগ সুপারিশ ও এমপিও ভুক্তিতে আসছে মৌলিক পরিবর্তন। এবার শিক্ষক নিয়োগে থাকছে না নিবন্ধন পরীক্ষা; এর পরিবর্তে আসছে নতুন পদ্ধতি।

বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগ নিবন্ধন পরীক্ষা বাতিল। এবার এনটিএসসি আসছে : এনটিআরসি বাতিল।

বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগ নিবন্ধন পরীক্ষা বাতিল। এবার এনটিএসসি আসছে : এনটিআরসি বাতিল।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা পাঁচ হাজার করে টাকা পাবেন

সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার পদে আবেদনের যোগ্যতার অস্পষ্টতা স্পষ্ট করল প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর

বাংলাদেশ সরকার সরকারি কর্ম কমিশনের বা পিএসসির আদলে নতুন একটি কর্ম কমিশন গঠন করতে যাচ্ছে। এরপর থেকে আর হবে না শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমুহে শূন্য আসনের বিপরীতে সরাসরি নিয়োগ পরীক্ষার মাধ্যমে যোগ্য প্রার্থীদের শূন্য আসনে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করবে সেই আসন্ন নতুন কর্ম কমিশন। জানাগেছে, এই নতুন কর্ম কমিশন গঠনের উদ্যোগকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন দেশের শিক্ষাবিদরা।

বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ বা এনটিআরসিএভ বেসরকারি স্কুল, কলেজ ও মাদরাসায় শিক্ষক নিয়োগের নিমিত্তে ২০০৫ সালে গঠন করা হয়। এছাড়া ও ২০১৫ সাল থেকে বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগের সুপারিশ করার ক্ষমতা পায় প্রতিষ্ঠানটি। বর্তমানে এনটিআরসিএ এর মাধ্যমে শিক্ষক নিয়োগে রয়েছে নানান ধরণের জটিলতা। সুপারিশকৃত হওয়ার পরেও প্রার্থীদের নিয়োগ পেতে লাগে দীর্ঘ সময়। এছাড়াও নানা বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ বা এনটিআরসিএ এর নানা অনিয়মে বেহাল অবস্থা নিয়োগ প্রত্যাশীদের।

আর এজন্যই বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ বা এনটিআরসিএ বিলুপ্ত করে বেসরকারি শিক্ষক নির্বাচন কমিশন বা Non Government Teachers Selection Commotion (এনটিএসসি) নামে পিএসসির আদলে একটি কমিশন গঠনের উদ্যোগ নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

জানাগেছে, এই নতুন বেসরকারি শিক্ষক নির্বাচন কমিশন বা Non Government Teachers Selection Commotion (এনটিএসসি) গঠিত হলে চাকরি প্রত্যাশীদের আর নিবন্ধন পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে না। যেখানে শূন্য আসন থাকবে সেখানে সরাসরি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা আয়োজন করবে নব গঠিত এনটিএসসি। সাথে যোগ্য প্রার্থীদের সরাসরি নিয়োগের জন্য সুপারিশ করবে NTSC।

এবিষয়ে জানতে চাওয়া হলে, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপারিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, একজন শিক্ষক এক জায়গায় পদায়ন আছে, সে পরের এনটিআরসিতে আরেক জায়গায় চলে যায়। এতে পূর্বের জায়গাটি শূন্য পড়ে থাকে। সেই শুন্য পদটি পরে পূরণ করতে আমাদের দীর্ঘ সময় চলে যায়। এর কারণে প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষার্থীরা বঞ্চিত হন। এবিষয়ে তিরি আরো জানান, যদি নতুন কমিশন হয় তবে আর এমন হবে না এবং নিয়োগ প্রক্রিয়া আরও স্বচ্ছ হবে।

শিক্ষাবিদরা মনে করেন, নতুন এই কমিশন গঠিত হলে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় আরো বেশি গতি ও স্বচ্ছতা আসবে। এছাড়া আরো বেশি স্বচ্ছতা নিশ্চিতে গঠিত হতে যাওয়া বেসরকারি শিক্ষক নির্বাচন কমিশন বা Non Government Teachers Selection Commotion (এনটিএসসি) প্রতিষ্ঠানটিকে স্বায়ত্তশাসন দেয়ার পরামর্শ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইন্সস্টিটিউটের সহযোগী অধ্যাপক মুজিবুর রহমানের।

বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগ নিবন্ধন পরীক্ষা বাতিল। এবার এনটিএসসি আসছে : এনটিআরসি বাতিল।

তিনি এবিষয়ে মতামত ব্যক্ত করতে যেয়ে আরো বলেন, “আমাদের পিএসসির মতো একটা শক্তিশালী প্রতিষ্ঠান দরকার ও এমন সব নীতিমালা তৈরি করতে হবে যেখানে কাদের শিক্ষক হিসেবে চাওয়া হচ্ছে, তাদের বেতন কেমন হবে এসব বিষয়গুলো ও অন্তর্ভূক্ত থাকবে।”

ইতোমধ্যে এনটিএসসি বা বেসরকারি শিক্ষক নির্বাচন কমিশন বা Non Government Teachers Selection Commotion গঠন করতে একটি খসড়া আইন তৈরির নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। এবিষয়ে চলতি মাসেই চূড়ান্ত খসড়া তৈরি হচ্ছে। সেজন্য একজন অতিরিক্ত সচিবকে চেয়ারম্যান ও পাঁচজন যুগ্ম সচিবকে সদস্য করে এনটিএসসি বেসরকারি শিক্ষক নির্বাচন কমিশন বা Non Government Teachers Selection Commotion গঠিত হবে।

এবিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র আরো জানিয়েছে, বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগ কমিশনের আইনের খসড়া দ্রুত পাঠাতে এনটিআরসিএকে তাগিদ দেয়া হয়েছে এবং আইনটি পাওয়ার পর তা আইন মন্ত্রণালয়, অর্থ মন্ত্রণালয় ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনের পর সচিব কমিটিতে পাঠাতে হবে এবং এরপর এটি অনুমোদনের জন্য মন্ত্রিসভায় পাঠানো হবে। এবং মন্ত্রী সভায় অনুমোদন হলে তা জাতীয় সংসদে অনুমোদনের জন্য পাঠাতে হবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র আরো জানায়, এনটিএসসি বা বেসরকারি শিক্ষক নির্বাচন কমিশন বা Non Government Teachers Selection Commotion জন্য জনবল নিয়োগে পদ সৃজন ও নিয়োগ সংক্রান্ত বিভিন্ন দিক থাকায় এসব প্রক্রিয়া আমাদের অনুসরণ করা লাগবে।

শিক্ষা নিউজে মাধ্যমিক বিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল তথ্য জানতে নিয়মিত shikkhanews.com লিখে সার্চ করুন। আমাদের ফেসবুক পেইজ হল লিংকে প্রবেশ করে পেইজে লাইক দিয়ে রাখলে; নিয়মিত আপডেট আপনার কাছে পৌছে যাবে। শিক্ষা নিউজ পড়ুন, শিক্ষা ও চাকরি বিষয়ক নিউজ বিষয়ে আপডেট থাকুন।

শিক্ষা নিউজ ডেস্ক : আর আর।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button